ঢাকা, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০

বাংলাদেশের লক্ষ্য ২০০-২২০ রানের লিড

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৮, ২০২৩, ০৯:৩৫ রাত  

ছবি সংগৃহীত

ঢাকা টেস্ট জিততে নিউজিল্যান্ডকে ২শর বেশি রানের টার্গেট ছুঁেড় দিতে পারলেই ম্যাচ জয় সম্ভব বলে মনে করেন বাংলাদেশের অফ-স্পিনার নাইম হাসান। এই ম্যাচ ড্র বা জিতলেই প্রথমবারের নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ পাবে  টাইগাররা।
দ্বিতীয় দিনের পুরোটা এবং তৃতীয় দিনের প্রথম সেশন বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের কারণে ভেস্তে  যাওয়ার পর খেলা শুরু হলে নিউজিল্যান্ডকে প্রথম ইনিংসে দ্রুত গুটিয়ে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে বাংলাদেশ। 
৫ উইকেটে ৫৫ রান নিয়ে খেলা শুরু করে বাংলাদেশকে হতাশ করেন নিউজিল্যান্ডের গ্লেন ফিলিপস। তার মারমুখী ব্যাটিংয়ে সব উইকেট হারিয়ে ১৮০ রানে অলআউট হয়ে ৮ রানের লিড নেয় কিউইরা। আলো স্বল্পতার কারনে দিনের খেলা আগেভাগে শেষ হবার আগে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ৩৮ রান করে টাইগাররা। 
আজ দিনের খেলা শেষে নাইম বলেন, ‘আমার মনে হয়, যত লম্বা সময় ধরে ব্যাটিং করতে পারবো, আমাদের জন্য ভালো। আমার মনে হয়  ২০০ থেকে ২২০ রান এই উইকেটে নির্ভরযোগ্য।’
নাইমের সুরে কথা বলেছেন ৭২ বলে ৮৭ করে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডকে লিড এনে দেওয়া ফিলিপসও। 
ফিলিপস বলেন, ‘সম্ভবত এ উইকেটে আমি ১৮০ থেকে ২শ রান একটি ভাল স্কোর ও তাড়া করা কঠিন হবে। এটা করা কঠিন নয়।  কিন্তু সেটি করতে অনেক কষ্ট করতে হবে এবং আমাদের পরিকল্পনায় অটল থাকতে হবে। কিন্তু আমরা যদি টার্গেট ২শর নীচে রাখতে পারি, তাহলে সত্যিই খুশি হবো।’
প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের লিডে হতাশ নন নাইম। তিনি বলেন, ‘তারা এখানে খেলতে এসেছে। তাদের মধ্যে কেউ ভালো ইনিংস খেলেছে, এজন্যই লিড পেয়েছে তারা। আমি মনে করি দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো ব্যাট করতে পারলে আমরা ম্যাচ জিতবো। এই মুহুর্তে, আমরা তাদের চেয়ে এগিয়ে আছি কারণ আমাদের লিড আছে।’
ফিলিপ যেভাবে ব্যাটিং করেছেন, এমন কঠিন উইকেটে এভাবে ব্যাটিংই লড়াইয়ের জন্য প্রধান উপায় নয় বলে মনে করেন নাইম। তিনি বলেন, ‘সবারই নিজস্ব ফর্মুলা থাকে। কেউ দীর্ঘক্ষণ ব্যাট করতে ভালোবাসে, আবার কেউ ইনিংস গড়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে বা কেউ বোলারদের উপর আগ্রাসী হয়ে সহজেই রান করে। প্রত্যেকের গেম প্লান ভিন্ন। আজ সে  নিজের পরিকল্পনায় সফল হয়েছে।  কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে এভাবে ব্যাটিং করে সফল হবে তার কোন নিশ্চয়তা নেই।’