1. admin@bdtribune24.com : admin :
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:২৮ অপরাহ্ন

খাদ‍্যে ভেজালকারিদের কেউ রেহাই পাবেনা- পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম

  • আপডেট সময় : শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ২৭ বার পঠিত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: খাদ্যে ভেজাল ভয়ংকর অপরাধ উল্লেখ করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন , চিনি থেকে গুড় তৈরী একটি মারাত্মক অনরাধ। এ কাঠামো পৃথিবীর কোন দেশে নাই। যারা এ পদ্ধতির সঙ্গে জড়িত তাদের কেউ রেহাই পাবেনা। শনিবার ( ১০ ডিসেম্বর) সকালে আড়ানী এফ.এম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের আয়োজনে জনপ্রতিনিধি, গুড় উৎপাদনকারী ও ব্যবসায়ীদের অংশ গ্রহনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত “নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক’’ একটি অবহিত করণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অবহিত করন সভায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত শীত মৌসুমে রাজশাহী র‌্যাবের অভিযানে আড়ানীতে বিপুল পরিমান আখের গুড় ধবংস করার সংবাদ পড়ে জানতে পারি, আড়ানীতে চিনি গালাই করে গুড় তৈরী করা হয়। এটি মানব দেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক এবং ঝুকি পূর্ণ। এ থেকে মানুষের শরীরে ক্যানসার এবং কিডনি জনিত সমস্যার মত ভয়াবহ রোগ সৃষ্টি হয়। যার চিকিৎসা করার সাধ্য অনেকের নেই।

শাহরিয়ার আলম ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যে গুড় তৈরীর পর আপনারা খাচ্ছেন না, সেই গুড় কেন অন্যদের খাওয়াচ্ছেন ? দয়া করে এ কাজটি কেউ করবেন না। বাংলাদেশে ১৬ টি সুগার মিল আছে। কিন্তু মিল কর্তৃপক্ষ প্রতিবছর লোকশান দেখায়। এ কারণে সরকার কিছু মিল ইতোমধ্যে বন্ধ করে এখন বিদেশ থেকে চিনি আমদানি করছে। আমাদের সরকার চাই , উৎপাদন থেকে ভোক্তা পর্যন্ত নিরাপদ ও পূষ্টি সমৃদ্ধ খাদ্য সরবরাহ করতে। এ কারনে আজকে এই অবহিত করণ সভার আয়োজন করা হয়েছে।
উক্ত সভায় বর্তমান সরকারের সাবেক যুগ্ন সচিব এবং প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর সাবেক মহাপরিচালক শফিকুল ইসলাম মুকুট বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একেকটা এলাকায় একেক ধরণের ব্রান্ড ভেনু তৈরী করতে হবে। এখানে ব্যবসায় বিকাশ না থাকলে পৌরসভা থাকবে না। ইতোমধ্যে আমরা নানা কারণে তিনটি পণ্যের মধ্যে এ অঞ্চলের পাট এবং হলুদ হাত ছাড়া করেছি। এখন আছে কেবল গুড়। যদি এমন উপায় বের করা যাই, গুড়কে গুড়ের জায়গায় রেখে “নতুন ব্যান্ডিং’’ হিসাবে কোন কেমিক্যাল ছাড়া শুধু চিনি দিয়ে গুড় তৈরী সম্ভব, তাহলে সংশ্লিষ্টদের বসে একটি বোর্ড গঠনের মাধ্যমে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
উক্ত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন  শাকিল আহম্মেদ, নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তর রাজশাহী, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর রাজশাহীর সহকারি পরিচালক মাসুম আলী , খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (বি. এস. টি. আই) রাজশাহীর সহকারি পরিচালক শ্রী-দেবব্রত বিশ্বাস, ,কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর রাজশাহীর উপ মহাপরিচালক মো: আরিফুল ইসলাম, আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী, আড়ানীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক রাম গোপাল সাহা ও মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু। উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যান মেম্বার ও ব্যবসায়ী-সহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 BD Tribune 24
Theme Customized By Shakil IT Park